রবিবার
২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং
৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
১৮ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

সরিষা ক্ষেতে হলুদের সমারোহ

প্রতিবেদক:  Shomoy News 24    প্রকাশের সময়: 24/01/2019  3:51 PM

আনোয়ার হোসেন আকাশ, সময় নিউজ ২৪ ডটনেট, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও): চলতি মৌসুমে অনূকুল আবহাওয়ায় সরিষা চাষ বেশ ভালই হয়েছে। প্রতিকুল কোন প্রভাব না থাকায় বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন কৃষক। ফসল আর ফুল দেখে অধিক ফলনের স্বপ্ন সরিষা চাষিদের চোখে। ঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় রেকর্ড পরিমাণ জমিতে উন্নত জাতের সরিষা চাষ হয়েছে। হলুদ রঙ আর মিষ্টি সুবাসে ভরে গেছে সরিষার ক্ষেত আর পুরো মাঠ। স্বল্প খরচে অল্প সময়ে এ ফসল আস্তে আস্তে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে কৃষকের মাঝে। তাছাড়া আমন ধান কেটে বোরো আবাদের মাঝখানে অনায়াসে এফসলটি উঠে যাচ্ছে কৃষকের ঘরে। যার ফলে জনপ্রিয়তা বাড়ছে কৃষকের কাছে।
রাণীশংকৈল উপজেলা কৃষি অফিস তথ্যমতে, চলতি মৌসুমে পৌরসভা ও আট ইউনিয়নের মোট ৩৯৭৫ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষ হচ্ছে। গত মৌসুমে ২৪৪০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষ হলেও এ বছর প্রায় দ্বিগুন জমিতে সরিষার চাষ হয়েছে। তবে কৃষি বিভাগ মনে করছেন বিভিন্ন এলাকার অধিকাংশ কৃষকরা তাদের জমিতে উচ্চ ফলনশীল বারি-৯,বারি-১৪,বারি-১৫ ও সম্পদ জাতের সরিষা আবাদ করছেন। গত বছর সরিষা চাষিরা স্থানীয় বাজারে উন্নত জাতের সরিষার দাম ভালো পাওয়ায় কৃষকরা এবারও সরিষা চাষে অধিক আগ্রহী হয়েছেন। এই মৌসুমে অনুকূল আবহাওয়ায় উপজেলায় সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা এবং সরিষা চাষিরা অধিক মুনাফা লাভ করবে বলে আশা করছেন উপজেলা কৃষি বিভাগ।
কয়েকজন সরিষা চাষির কাছ থেকে জানা গেছে, বছরের পর বছর স্থানীয় জাত চাষ করে ফলন কম হওয়া এবং উৎপাদন সময় বেশি লাগার কারনে তারা সরিষা চাষ অনেকাংশে কমিয়ে দেন। তবে চলতি মৌসুমের শুরুতে উপজেলা কৃষি বিভাগ সরিষা চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করে। এবার বৈরী আবহাওয়া না থাকার কারণে সরিষার ভাল ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিসার সঞ্জয় দেবনাথ বলেছেন,কৃষকদের যথাযথ পরামর্শ ও পরিচর্যার বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে।পরিচর্যা সেভাবে করতে হয় না এ ফসলে। তাই খরচ অন্যান্য ফসলের তুলনায় কম হওয়ায় কৃষকেরা সরিষা চাষে উৎসাহী হয়ে উঠেছে।

Site Develop by : Shekh Mostafizur Rahman Faysal