সোমবার
১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
২রা পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
১৯শে রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

পাইকগাছায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গা দখলমুক্ত করতে ডিসি বরাবর অভিযোগ

প্রতিবেদক:  Shomoy News 24    প্রকাশের সময়: 07/11/2019  11:34 PM

আমিনুল ইসলাম বজলু, পাইকগাছা (খুলনা): খুলনার পাইকগাছায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গা দখল করে মৎস্য আড়ৎ গড়ে তোলায় জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ হয়েছে। অনুলিপি দেয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রী সহ ১৭টি দপ্তরে।
লিখিত অভিযোগে জানা যায়, পাইকগাছা পৌরসভার শিবসা ব্রীজের কাছে মৎস্য আড়ৎ অবস্থিত। শিবসা নদীর তীরে গড়ে তোলা অধিকাংশ পাকা ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় নির্মিত। আড়ৎদারী সমিতির ১১১নং সদস্য মোঃ বজলুর রহমান লিখিত অভিযোগে প্রকাশ, মুরশিদ মৎস্য আড়ৎ, উর্মি মৎস্য আড়ৎ, বিসমিল্লাহ ফিস, শিমুল মৎস্য আড়ৎ, কাগজী মৎস্য আড়ৎ, প্রিয়া মৎস্য আড়ৎ, শম্পা মৎস্য আড়ৎ, মেসার্স ইমন এন্টারপ্রাইজ সহ অনেক প্রতিষ্ঠান পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় পাকা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছে। প্রতিষ্ঠানগুলো উচ্ছেদের জন্য সাবেক মেয়র এসএম মাহবুবুর রহমান পদক্ষেপ গ্রহণ করলেও তার মৃত্যুতে বিষয়টি ঝুলে যায়। যা এখনও পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। ২০০৮ সালে যৌথ বাহিনীর ক্লিন হার্ট অপারেশনের সময় আড়ৎটি অবৈধ ঘোষণা করে উচ্ছেদ করা হয়। যা পরবর্তীতে আবারো পুনঃদখল করা হয় বলে অভিযোগে জানা যায়। মৎস্য আড়ৎদারী সমিতির সভাপতি আব্দুল জব্বার জানায়, এখানে কোন অবৈধ সম্পত্তি নেই। নিজেদের ক্রয়কৃত রেকর্ডীয় জমিতে পাকা স্থাপনা করে ব্যবসা পরিচালনা করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তার কোন ভিত্তি নেই। পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-পরিচালক ফরিদ উদ্দীন জানান, সম্প্রতি সরকার পানি উন্নয়ন বোর্ডের সমস্ত জায়গা উদ্ধারের জন্য অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে। আগামী সপ্তাহে সার্ভেয়ারের মাধ্যমে জরিপ নির্ণয় করে মৎস্য আড়ৎ সহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের সমস্ত জায়গা দখলমুক্ত করা হবে। পৌর প্যানেল মেয়র (চলতি দায়িত্ব) এসএম ইমদাদুল হক বলেন, মৎস্য আড়ৎটি তাদের রেকর্ডীয় জায়গায় স্থাপিত বলে জানি। পৌর নীতিমালার মধ্যে রেখে চলতি বছর ইজারাও প্রদান করা হয়েছে।

Site Develop by : Shekh Mostafizur Rahman Faysal