বৃহস্পতিবার
১৭ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং
২রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
১৮ই সফর, ১৪৪১ হিজরী

পাঁচ দিনে তিনবার ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করল ইরান

প্রতিবেদক:  Shomoy News 24    প্রকাশের সময়: 08/07/2019  11:48 PM

A British Royal Navy ship (back R) patrols near supertanker Grace 1 suspected of carrying crude oil to Syria in violation of EU sanctions after it was detained off the coast of Gibraltar on July 4, 2019. – Authorities did not say where the oil came from but specialised shipping trade publication Lloyd’s List said the Panamanian-flagged tanker was thought to be transporting crude from Iran. (Photo by JORGE GUERRERO / AFP)

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, সময় নিউজ ২৪ ডটনেট: জিব্রাল্টার প্রণালিতে অবৈধভাবে ইরানি তেল ট্যাংকার জব্দের ঘটনায় বিগত পাঁচ দিনে তিনবার ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইরান। গত বৃহস্পতিবার থেকে এ পর্যন্ত তিনবার ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হয়।তেহরানে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত রবার্ট ম্যাককাইরেকে ডেকে জাহাজ আটকের বিষয়ে ব্রিটিশ সরকারের জবাব চেয়েছে তেহরান। তবে তৃতীয়বার তলবের বিষয়টি ইরানের পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি বলেন, সোমবার ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত রবার্ট ম্যাককাইরেকে আনুষ্ঠানিকভাবে তলব করা হয় নি। দু’পক্ষ বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে সমাধানে একমত হয়েছে। এ ধরনের একটি বৈঠকেই ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত ইরানি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বসেছেন।

গত বৃহস্পতিবার গ্রেইস-১ নামের একটি ইরানি সুপারট্যাংকার জব্দ করেছে ব্রিটিশ রয়েল নেভি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সিরিয়ায় তেল বহন করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে জাবাল আল-তারিক থেকে ওই ট্যাংকারটি জব্দ করেছে ব্রিটেন।

এদিকে তেল ট্যাংকার আটকের প্রতিশোধ হিসেবে একটি ব্রিটিশ জাহাজ জব্দের হুমকি দিয়েছেন ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর এক কমান্ডার।

টুইটারে বিপ্লবী গার্ড কমান্ডার মোহসিন রেজাই বলেন, যদি ইরানি তেল ট্যাংকার ব্রিটিশরা ছেড়ে না দেন, তবে একটি ব্রিটিশ জাহাজ জব্দ করাই হবে কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব।

ইরান বলেছে, জাহাজ মুক্ত করার জন্য তেহরান তার সমস্ত রাজনৈতিক ও আইনগত শক্তি কাজে লাগাবে।

Site Develop by : Shekh Mostafizur Rahman Faysal